ঘরোয়া পদ্ধতিতে ফেসিয়াল

ঘরোয়া পদ্ধতিতে ফেসিয়াল করার সহজ উপায়

ফেসিয়াল(Facial) শব্দটা শুনে মনে হয় কিছু একটা ঘটতে চলেছে চারপাশে, এমনটি ভাববার কোন কারণ নেই। ত্বকে চমক আনতে ক্লেনজিং, টোনিং এবং ময়শ্চারাইজিংয়ের কোনো বিকল্প নেই। এক কথায়, এই তিন স্টেপেই ত্বক পুরোপুরি পরিষ্কার হয়। আর এই মুখ পরিষ্কার করার পোশাকি নামই হল ফেসিয়াল(Facial)। নিজের স্কিন টাইপ জেনে সেই মতো পরিষ্কার করলেই হয়ে যাবে ঘরোয়া পদ্ধতিতে ফেসিয়াল । পরামর্শ দিয়েছেন হার্বস আয়ুর্বেদিক স্কিন কেয়ার ক্লিনিকের স্বত্বাধিকারী শাহীনা আফরীন মৌসুমি।

ক্লেনজিং :
নরমাল স্কিন হলে কটন বল ঠাণ্ডা দুধে চুবিয়ে মুখ পরিষ্কার করে নিন। তারপর আরও একবার পানি দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে নিন। ড্রাই স্কিন হলে শসার রস(Sorghum juice) ও ঠাণ্ডা দুধের মিশ্রণ কটন বলে ডুবিয়ে পরিষ্কার করে নিন। অয়েলি স্কিনে বেশি ময়লা জমে বলে ঠাণ্ডা দুধের সঙ্গে পুদিনাপাতার রস মিশিয়ে নিন। এরপর কটন বল দিয়ে, সেই মিশ্রণে ডুবিয়ে ভালো করে ক্লেনজিং করুন। কম্বিনেশন স্কিনের ক্ষেত্রে ঠাণ্ডা দুধে কটন বল ভিজিয়ে পরিষ্কার করলেই উপকার পাবেন।

আরো পড়ুন  দাগহীন নিখুঁত সুন্দর ত্বক পেতে ফ্লাওয়ার ফেসিয়াল

স্ক্রাবিং :
নরমাল স্কিন হলে কমলালেবুর খোসা ও চালের গুঁড়ার পেস্ট অথবা বার্লি ও ঠাণ্ডা দুধের মিশ্রণ ব্যবহার স্ক্রাবার হিসেবে করতে পারেন। ড্রাই স্কিনের ক্ষেত্রে চালের গুঁড়া(Rice powder) ও দুধের সরের সঙ্গে একটু মধু(Honey) মিশিয়ে নিন। অয়েলি স্কিনে মসুর ডালবাটা ও কমলালেবুর খোসা দিয়ে স্ক্রাব করা যায়। কম্বিনেশন স্কিনের ক্ষেত্রে কর্নফ্লাওয়ার ও এক চিমটে কর্পূর কুসুম গরম পানিতে মিশ্রণ করে স্ক্রাবিং করুন। মনে রাখতে হবে, স্ক্রাবিংয়ের সময় হালকা প্রেসার দিয়ে সার্কুলার মুভমেন্টে ম্যাসাজ করতে হবে।

টোনিং :
নরমাল ও ড্রাই স্কিনের জন্য শুধু গোলাপজল দিয়ে টোনিং করলেই হবে। অয়েলি স্কিনে পুদিনা পাতা, শসা ও লেবুর রস(Lemon juice) ভালো করে মিশিয়ে মাখতে পারেন। কম্বিনেশন স্কিনের জন্য টমেটো রস, শসার পেস্ট ও গোলাপজলের মিশ্রণ ভালো টোনার হিসেবে কাজ করে।

আরো পড়ুন  ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে ঘরোয়া ৭টি ফেসপ্যাক

ময়শ্চারাইজিং :
নরমাল ও কম্বিনেশন স্কিনে অ্যালোভেরা জেল(Aloe vera jail) ও সামান্য মধু মিশিয়ে লাগানো যেতে পারে। অয়েলি স্কিনে আপেল কুচিয়ে তার সঙ্গে মধু মিশিয়ে লাগিয়ে পরে ধুয়ে নিন। ড্রাই স্কিনে মধুর সঙ্গে নারকেল তেল(Coconut oil) মিশিয়ে লাগালে বেশ উপকার পাবেন।

নরমাল স্কিনের ফেসপ্যাক :
দুই চামচ বেসন, দুই চামচ মধু, কচি গাজর পেস্ট ও গোলাপজল(rose water) একসঙ্গে মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট পর ঠাণ্ডা পানির ঝাঁপটা দিয়ে ধুয়ে নিন।

কম্বিনেশন স্কিনের ফেসপ্যাক :
গমের ছাতু, মধু, হাফ চামচ বাদাম তেল(Almond oil) ও পানি মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে ২০ মিনিট পর ধুয়ে নিন।

অয়েলি স্কিনের ফেসপ্যাক :
মসুর ডালবাটার সঙ্গে ডিমের সাদা অংশ, শসার রস, লেবুর রস(Lemon juice) ভালো করে মিশিয়ে মুখে লাগান। ২৫ মিনিট পর হালকা কুসুম পানিতে মুখ ধুয়ে নিন।

আরো পড়ুন  মুখ ও গলার কালো দাগ দূর করার ২টি কার্যকরী উপায়

ড্রাই স্কিনের ফেসপ্যাক :
এক টুকরো পাউরুটি দুধে ভিজিয়ে নরম করে তার সঙ্গে পাকা কলা চটকে একটা লেই বানান। এতে এক চামচ মধু ও এক চামচ চন্দন গুঁড়া(Sandal powder) মিশিয়ে নিয়ে ২০ মিনিট পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে পরিষ্কার করে নিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *