ত্বকের যত্নে রসুনের ৪টি ব্যবহার জেনে রাখুন

রসুনের ওষধি গুণাবলী সম্পর্কে কম বেশি সবার জানা। হার্ট সুস্থ রাখা থেকে শুরু করে ওজন কমানো(weight loss) পর্যন্ত রসুনের ভূমিকা রয়েছে। আপনি কি জানেন ত্বকের যত্নেও রসুনের জুড়ি নেই। ত্বকের যত্নে(skin care) রসুন! অবাক হচ্ছেন নিশ্চয়? ব্রণ এবং ব্রণের দাগ(Acne scars) নিমিষে দূর করে দিতে পারে রসুন। রসুনের এমন কিছু ব্যবহারের সাথে আপনাদের পরিচয় করিয়ে দেব আজ।

১। বয়সের ছাপ রোধে
চার-পাঁচটি রসুনের কোয়া কুচি করে পেস্ট করে নিন। এরসাথে এক টেবিল চামচ টক দই(sour yogurt) মেশান। মুখ ভাল করে পরিষ্কার(clean) করে এটি ত্বকে ব্যবহার করুন। ১৫ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। রসুনের অ্যান্টি অক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান ত্বকে বয়সের ছাপ পড়া রোধ করবে। টক দই ত্বক(Skin) ময়েশ্চার করে।

আরো পড়ুন  ব্রণ মুক্ত, ফর্সা, নিখুঁত সুন্দর ত্বক পেতে প্রতিদিনের রুটিন

২। হোয়াটহেডেস এবং ব্ল্যাকহেডস দূর করতে
দুই তিনটি রসুনের কোয়া কুচি, এক চা চামচ ওটমিল, দুই তিন ফোঁটা টি ট্রি অয়েলের(oil) সাথে আধা চা চামচ লেবুর রস(Lemon juice) ভাল করে মিশিয়ে নিন। এটি পাতলা করে ভেজা মুখে লাগান। ১৫ মিনিট পর ত্বক এক্সফলিয়েট করে নিন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। রসুন জেদী হোয়াইট হেডস এবং ব্ল্যাক হেডস(blackheads) দূর করে দেয় নিমিষে।

৩। ব্রণ দূর করতে
দুই তিনটি রসুনের কোয়া থেকে রস বের করে নিন। রসুনের রসের সাথে এক কাপ কুসুম গরম পানি মেশান। একটি তুলোর বল মিশ্রণটিতে ভিজিয়ে নিন। এরপর বলটি দিয়ে ব্রণের(acne) স্থানে ঘষুন। শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। রসুনের অ্যান্টি ফাঙ্গাল উপাদান দ্রুত ব্রণ দূর করে দেয়।

আরো পড়ুন  স্থায়ীভাবে বয়সের ছাপ দূর করতে ব্যবহার করুন ভাত

৪। স্ট্রেচ মার্ক দূর করা
স্ট্রেচ মার্ক(Stretch Mark) দূর করতে কুসুম গরম তেলের ম্যাসাজের জুড়ি নেই। রসুন কুচি তেলে দিয়ে গরম করুন। এই তেলটি (oil) স্ট্রেচ মার্কে ম্যাসাজ করে লাগান। রসুনের জুসের পরিবর্তে রসুনের তেল ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়া প্রতিদিন খাদ্য তালিকায় রসুন রাখুন। রসুনের অ্যালাসিন এবং সালফার ত্বকের নমনীয়তা বৃদ্ধি করে স্ট্রেচ মার্ক দূর করতে সাহায্য করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *