ফিট ও সুস্থ থাকার উপায় জেনে নিন

নিজেকে চিরকাল ফিট ও সুস্থ থাকার উপায় জেনে নিন

কখনও মেয়ে, কখনও প্রেয়সী, কখনও মা, কখনও বোন। অনেক ভূমিকায় ব্যস্ত থাকেন সারাটা দিন। কিন্তু সেই ব্যস্ততার ফাঁকে নিজের যত্ন নেওয়া হয় কি? রোজকার রুটিনে কীভাবে ফিট থাকবেন তার সহজ কিছু উপায় বলে দেওয়া হচ্ছে।

ব্রেকফাস্ট ইজ মাস্ট
রাজের অফিসের তাড়াহুড়ো, টিনটিনের স্কুলের প্রিপারেশন, দুধওয়ালা, কাগজওয়ালা সব সামলে অফিস ছুটতে গিয়ে নিজের প্রাতরাশটাই হয়ত স্কিপ(Skip) করে গেলেন। এটা খুব বাজে অভ্যাস৷ ডিনার এবং ব্রেকফাস্টের মাঝে অনেকটা সময় কেটে গেছে। তাই ভারী ব্রেকফাস্ট শরীরের পক্ষে খুব জরুরি। ঠিক সময় খেলে মেটাবলিসম ঠিকমত হয়।

সঠিক ঘুম
দিনে ৭-৮ ঘণ্টা সাউন্ড স্লিপ খুব দরকার। সারাদিন বাড়ি, অফিস(Office) সব সামলাতে হবে আপনাকেই। তাই লেট নাইট না করে একটা লম্বা ঘুম দিন৷ ঘুমাতে যাওয়ার একটা টাইম ফিক্স করুন। সেই সময়ের মধ্যে বাকী সব কাজ সেরে ফেলুন। রাতে টিভি প্রোগ্রাম গুলকে রেকর্ড করে রাখুন, পড়ে দেখার অনেক সময় পাবেন।

আরো পড়ুন  করোনার প্রথম ঔষুধ নিয়ে সুখবর মিলল- পড়ুন বিস্তারিত

কাজ করুন আনন্দে
কত কাজ করতে হয়, কেউ আপনার কথা ভাবে না এসব ভেবে ডিপ্রেশনে না গিয়ে নিজের কাজটা আনন্দ সহকারে করুন। কেউ ভাবল কি ভাবল না সেসব ছাড়ুন৷ বরং এটা ভাবুন দিনের শেষে ডিনারের জন্য আপনার দ্বারস্থই হবে পুরো পরিবার।

পিঠের যত্ন নিন
পিঠে মাঝে মধ্যেই ব্যথা হয়৷ অথচ ব্যাপারটাকে তেমন পাত্তা দিচ্ছেন না এমন করলে কিন্ত্ত খুব ভুল করছেন। বেশিরভাগ মহিলারই ব্যাকবোনের সমস্যা হয়৷ যেটা পড়ে খুব ভোগায়৷ আজই চিকিত্সকের শরণাপন্ন হন৷ ভিটামিন(Vitamin) ও মিনারেলস সমৃদ্ধ খাওয়ার খান।

টেস্ট দ্য কালারস
শুধু টিনটিনকেই শাকসবজি(Vegetables) খাওয়ালেন নিজের বেলা লবডঙ্কা, এমন করবেন না। আপনার শরীরের জন্যও ভেজিস জরুরি। বেশি করে শাকসবজি খান। কালারফুল শাকসবজি শুধু দেখতে ভালো হয় তা না, খেতেও ভালো হয় এবং গুনও প্রচুর।

আরো পড়ুন  ফ্রিজে দাগ ফেলার শাস্তি কি এমন হওয়া উচিত?

যোগব্যায়াম করুন
নিয়মিত যোগব্যায়াম করুন। নিজের অঞ্চলে কোনও যোগা ক্লাসের সদস্য হতে পারেন। কিংবা কাজের ফাঁকে বাড়িতেই স্রেফ কপালভাতি করুন৷ উপকার পাবেন।

গল্প করুন
দিনের কোনও একটা সময় প্রিয় বন্ধু কিংবা মাকে ফোন করে জমিয়ে আড্ডা দিন। নিজের সমস্যা চেপে রাখবেন না। শেয়ার করুন৷ তাহলে দেখবেন অনেক হালকা লাগছে। এতে মানসিক শান্তি পাওয়া যায়।

গ্রিন টি
দিনে অন্তত দুবার সব চিন্তা ভাবনা ছেড়ে আরাম কেদারায় হেলান দিয়ে গ্রিন টি(green tea) খান। এর থেকে ভালো কিছু হয় না। তবে মনে অশান্তি নিয়ে ১০ কাপ গ্রিন টি খেলেও তা বিস্বাদ লাগতে বাধ্য।

শোয়েট অ্যান্ড ওয়েট
যতক্ষন না সম্পূর্ণ ঘামছেন ততক্ষন এক্সারসাইজ করে যাবেন এমনটা নয়। তবে দিনে একঘণ্টা ঘাম ঝরালেই হার্টের সমস্যা, লো ব্লাড প্রেসারের মত সমস্যার সমাধান তো হবেই, এছাড়া সারাদিন কাজ করার জন্য এন্থু পাবেন।

আরো পড়ুন  দিন শুরু করুন এই ৬টি স্বাস্থ্যকর খাবার দিয়ে

হেলদি অভ্যাস
দিনে অল্প পরিমানে আমন্ড বা ওয়ালনাট খেতে ভুলবেন না। নারীদের জন্য হেলদি অভ্যাস এটা। বাদামে অত্যাবশ্যক ফ্যাট ও প্রোটিন থাকে যা বিশেষত মহিলাদের দেহের জন্য জরুরি। নিজের মেয়েকেও বাদাম খাওয়ান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *