স্থায়ীভাবে বয়সের ছাপ দূর করতে ব্যবহার করুন ভাত

ভাত (Rice) বাংলাদেশের ও ভারতের অধিকাংশ মানুষের প্রধান খাদ্য। এটি আসলে চাল কে সিদ্ধ করে তৈরি করা হয়। বাংলাদেশের চাল থেকে যে ভাত হয় তা মোটামুটি ভাবে ঝরঝরে। কিন্তু চীন, জাপান এবং কোরিয়ার চাল এর ভাত বেশ আঠালো। চাল(Rice) ভালো করে ধুয়ে পর্যাপ্ত পানি দিয়ে চুলায় সিদ্ধ করতে দেওয়া হয়। সব চাল সিদ্ধ হলে নামিয়ে নেওয়া হয়। ভাতের বৈশিষ্ট্য হচ্ছে একটি ভাত টিপেই বোঝা যায় বাকিগুলো সিদ্ধ হয়েছে কিনা। চাল প্রধানত দুই প্রকারঃ সিদ্ধ চাল এবং আতপ চাল। সিদ্ধ চাল রান্না করার পরে মাড় গালা হয় কিন্তু আতপ চালের ক্ষেত্রে মাড় বা ফ্যান(Rice starch or fan) ফেলা হয় না। মাড় না ফেলে ভাত রান্নাকে বাংলাদেশের অনেক অঞ্চলে বসা ভাত বলা হয়।

আরো পড়ুন  ব্রণের গর্ত, র‍্যাশ, পোরস, লালচে ভাব দূর করার উপায়

ভাত বলিরেখা(Bolero) দূর করে চেহারার তারুণ্য ধরে রাখে। এখানে ভাত খাওয়ার কথা বলছি না। সেদ্ধ ভাত চটকে ত্বকে ব্যবহার করলে ত্বকের কুঁচকানো ভাব, বলিরেখা ও ঝুলে যাওয়া সমস্যা দূর হবে। তবে এর সঙ্গে মধু ও দুধ মেশাতে হবে। এ তিনটি প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহারে বুড়িয়ে যাওয়া ত্বকের তারুণ্য ফিরে আসবে। কীভাবে ত্বকে ভাত ব্যবহার করবেন, এক নজরে চোখ বুলিয়ে নিন।

যা যা লাগবে –
দুধ দুই টেবিল চামচ, রান্না করা ভাত তিন টেবিল চামচ ও মধু এক টেবিল চামচ। দুধ ত্বক(Skin) নরম ও মসৃণ রাখতে সাহায্য করে। অন্যদিকে রান্না করা ভাতে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট (antioxidants) রয়েছে, যা ত্বকের বলিরেখা দূর করে। আর মধু শুষ্কতা দূর করে ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখে।

আরো পড়ুন  ত্বকের রঙ ফর্সা করবে ঘরে তৈরি এই ক্রিমটি

যেভাবে ব্যবহার করবেন –
প্রথমে একটি বাটিতে দুধ, সেদ্ধ ভাত ও মধু(Honey) একসঙ্গে ভালো করে মিশিয়ে নিন। মেশানোর সময় ভাত ভালো করে চটকে নিন। এই প্যাক মুখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। এবার ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এভাবে সপ্তাহে একদিন ব্যবহার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *