শীতে পায়ের গোড়ালি ফাটা প্রতিরোধের ৪টি সহজ ঘরোয়া পদ্ধতি

শীতে পায়ের গোড়ালি ফাটা  (Ankle split) প্রতিরোধের ৪টি সহজ ঘরোয়া পদ্ধতি!
শীতকালে আবহাওয়া অনেক ঠাণ্ডা থাকে এবং শরীরে ময়েশ্চারের অভাব দেখা দেয় এবং পাশাপাশি রক্ত সঞ্চালন কমে যায়। এর ফলে পায়ের গোড়ালির ত্বক শুষ্ক ও মোটা হয়ে যেতে শুরু করে, সেখানে মরা কোষ জমতে শুরু করে। ফলে পায়ের গোড়ালি ফাটা (Ankle split) দেখা দেয়। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে আজ দেয়া হল কিছু সহজ সমাধান।

১। গ্লিসারিন ও গোলাপ জল মিশিয়ে পায়ের গোড়ালিতে লাগান, গোড়ালি নরম থাকবে।

২। হালকা কুসুম গরম পানিতে (warm water) আধ চামচ নারিকেল তেল (oil) ও সামান্য লবন মিশিয়ে পা ৫ মিনিট তাতে ডুবিয়ে রাখুন। তারপর দুধের সর, আটা, ও গ্লিসারিন মিলিয়ে পেস্ট তৈরি করে পায়ে লাগিয়ে নিন ১৫ মিনিট পরে ধুয়ে ফেলুন।

আরো পড়ুন  চিরতরে ঘাড়ের কালো দাগ দূর করুন ঘরোয়া ৫ টি উপাদান ব্যবহারে

৩। হালকা কুসুম গরম পানিতে (warm water) সামান্য শ্যাম্পু দিয়ে পা ভিজিয়ে রাখুন ১০ মিনিট। এরপর পায়ের গোড়ালি ব্রাশ দিয়ে ধীরে ধীরে ঘষুন। পা ধুয়ে পরিষ্কার তোয়ালে দিয়ে মুছে ফাটা অংশে একটু ভারী করে ভেসলিন লাগিয়ে নিন।

৪। পায়ের ফাটা অংশে পেঁয়াজের রস লাগিয়ে পরিষ্কার কোন নরম কাপড় দিয়ে বেঁধে রাখুন। মধুও দিতে পারেন ফাটা অংশে। এবং ফাটা জায়গায় ময়লা হলে লবন ও ঘিয়ের মিশ্রণ দিতে পারেন, ময়লা পরিষ্কার হয়ে যাবে।

এই শীতে পা ফাটা দূর করবে পাকা কলা!

শীতের রুক্ষ হাওয়ায় ত্বক হয়ে পড়ে প্রাণহীন। বিশেষ করে পায়ের গোড়ালি ফাটতে শুরু করে সবার আগে। এখন থেকেই তাই যত্ন নিন পায়ের। পা ফাটা থেকে মুক্তি পেতে পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে পা। জেনে নিন পা ফাটা থেকে মুক্তি পেতে কী করবেন-

আরো পড়ুন  ব্রণ হলে যে ৫টি খাবার অবশ্যই এড়িয়ে চলবেন

স্ক্রাব – পা ফাটা থেকে মুক্তি পেতে পায়ের গোড়ালি নিয়মিত স্ক্রাব করা জরুরি। গোসলের আগে কুসুম গরম পানিতে (warm water) পায়ের গোড়ালি ডুবিয়ে রাখুন। কিছুক্ষণ পর পিউমিস স্টোন দিয়ে ঘষে মরা চামড়া তুলে দিন। গোসল শেষ করে পেট্রোলিয়াম জেলি অথবা ময়েশ্চারাইজার লাগান। রাতে ঘুমানোর আগে পায়ে মোজা পরে ঘুমাবেন।

গ্লিসারিন – গ্লিসারিনের সঙ্গে লেবুর রস ও গোলাপজল মিশিয়ে ফেটে যাওয়া গোড়ালিতে লাগান। দূর হবে ফাটা। পাকা কলা – অতিরিক্ত পাকা কলা পা ফাটা দূর করার জন্য খুবই কার্যকর। একটি পেকে যাওয়া কলা ব্লেন্ড করে নিন। একটি অ্যাভোকাডোর পেস্ট মেশান। মিশ্রণটি পায়ের গোড়ালিতে লাগিয়ে রাখুন। কিছুক্ষণ পর কুসুম গরম পানি (warm water) দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

আরো পড়ুন  মিলনের সময় যেভাবে বুঝবেন আপনার সঙ্গী যৌ’নতায় সুখ পাচ্ছে

নারিকেল তেল (oil) ও লেবু – গোড়ালির ফাটা অংশের চামড়া ঘষে উঠিয়ে ফেলুন। পা ধুয়ে মুছে নারিকেল তেল (oil) ম্যাসাজ করে নিন গোড়ালিতে। ধীরে ধীরে দূর হবে ফাটা। কুসুম গরম পানিতে (warm water) লেবুর রস মিশিয়ে পা ডুবিয়ে রাখুন ১০ মিনিট। তারপর পা উঠিয়ে স্ক্রাব করে নিন। ধুয়ে মুছে গোড়ালিতে ময়েশ্চারাইজার লাগান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *