পিরিয়ড নিয়ে কিছু ভুল ধারণা যা অনেক মেয়েরাই জানে না

পিরিয়ড (Period) নিয়ে নানান ভুল ধারণা রয়েছে আমাদের সমাজে। বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যার আগে পিরিয়ড প্রক্রিয়াটি মানুষের কাছে একটি রহস্যময় বিষয় ছিল। ভুল ধারণা থেকে বের হয়ে এসে পিরিয়ড (Period) যে স্বাভাবিক ও প্রাকৃতিক প্রক্রিয়া তা বোঝা খুব জরুরি। পিরিয়ড (Period) চলাকালীন শরীরের পাশাপাশি মনের প্রশান্তিও দরকার। পিরিয়ড (Period) চলাকালীন ভুল ধারণাগুলো একজন মেয়ের স্বাভাবিক জীবন যাপনে নানান সমস্যা এবং বাধার সৃষ্টি করে। প্রচলিত ভুল ধারণাগুলো হলো :

Period Wrong Idea Before Vs Now I Period Symptoms

– পিরিয়ড হলে মেয়েরা অপরিচ্ছন্ন, অসুস্থ ও অভিশপ্ত হয়ে যায়। তাই তাকে একঘরে করে রাখা উচিত।

– পিরিয়ডের রক্ত দূষিত রক্ত।

– পিরিয়ড (Period) চলাকালীন গর্ভবতী হওয়া সম্ভব নয়।

আরো পড়ুন  করোনা এড়াতে বাচ্চাদের যেসব খাবার দেওয়া উচিত

– পিরিয়ডের কারণে রক্তশূন্যতা হয়।

– পিরিয়ড চলাকালীন রান্না ঘরে যাওয়া উচিত নয়।

– পিরিয়ডের (Period) কাপড় খোলা জায়গায় শুকানো ঠিক নয়। লোকচক্ষুর আড়ালে পিরিয়ডের কাপড় শুকাতে হয়।

– পিরিয়ড একটি গোপনীয় ও লজ্জাজনক বিষয়।

– পিরিয়ডের সময় বেশি নড়াচড়া করলে রক্তের প্রবাহ বৃদ্ধি পায়।

– পিরিয়ড (Period) চলাকালীন অবস্থায় গোসল করা যাবে না।

– পিরিয়ডের সময় মাছ-মাংস খাওয়া যাবে না, এতে করে বেশি রক্তক্ষরণ হবে এবং পিরিয়ডের রক্ত দুর্গন্ধযুক্ত হবে।

সঠিক তথ্যঃ

– পিরিয়ডের (Period) রক্ত অত্যন্ত পুষ্টিগুণসম্পন্ন যা শিশুকে গর্ভকালীন পুষ্টিদান করে। আর পিরিয়ডের রক্ত কোনভাবেই দূষিত, খারাপ বা নোংরা নয়।

– পিরিয়ডের সময় গর্ভবতী হওয়া সম্ভব।

আরো পড়ুন  যে অভ্যাস গুলোর কারণে নিজের অজান্তেই কমিয়ে ফেলছেন নিজের আয়ু

– পিরিয়ডের (Period) সময় সাধারণত ১০ থেকে ৩৫ মিলিলিটারের মত রক্তক্ষরণ হয় যা ২ থেকে ৭ টেবিল চামচ-এর সমান। এতে রক্তশূন্যতার কোন সম্ভাবনা নেই যদি না তা সেই নির্দিষ্ট পরিসীমা অতিক্রম করে। যদিও অনেকের ক্ষেত্রে রক্তক্ষরণের পরিমাণে ব্যতিক্রম থাকতে পারে।

– অন্যান্য সময়ের মত মাসিককালীন অবস্থায়ও একটি মেয়ে শুধু রান্না ঘরে যাওয়া নয়, সব ধরনের কাজই করতে পারে।

– পিরিয়ডের কাপড় খোলা জায়গায় না শুকালে তাতে ব্যাক্টেরিয়া জমতে পারে। তাই পিরিয়ডের (Period) কাপড় সবসময় কড়া রোদে শুকানো প্রয়োজন। এতে লজ্জার কিছু নেই।

– পিরিয়ড একটি স্বাভাবিক ও প্রাকৃতিক প্রক্রিয়া; এটি মোটেই গোপনীয় বা লজ্জাজনক বিষয় নয়। বরং কোন মেয়ের প্রথম পিরিয়ড (Period) হওয়ার দিনটি তার জন্য অনেক আনন্দের ও গর্বের হওয়া উচিত; কেননা পিরিয়ড প্রক্রিয়ার মাধ্যমেই একজন মেয়ে নারীত্বের জন্য প্রস্তুতি লাভ করে।

আরো পড়ুন  প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা শুরু ১৭ মে

– পিরিয়ডের (Period) সময় প্রতিদিন গোসল করা উচিত যাতে শরীরের যৌনাঙ্গ ভালোভাবে পরিষ্কার হয় এবং সবরকম রোগ-বালাই থেকে মুক্ত থাকে।

– পিরিয়ডের সময় রক্তস্বল্পতা পূরণ করার জন্য মেয়ে বা নারীদের এই সময় মাংস ও মাছের মতো প্রচুর আয়রনসমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে। পিরিয়ডের (Period) রক্তে বাজে গন্ধ হওয়ার কারণ মাছ বা মাংস নয়। সঠিক স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চলা। ফলে ব্যাক্টেরিয়ার সংক্রমণে এ দুর্গন্ধ হয়ে থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *