সকালের নাস্তা যেমন হওয়া উচিত

সারা দিন প্রাণবন্ত ও সুস্থ থাকতে সকালের নাস্তা(breakfast) শরীরের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। প্রতিদিন সকালে স্বাস্থ্যকর এবং ভারী নাস্তা খেলে মস্তিষ্ক পুরোদিনের জন্য তৈরি হয়ে যায় এবং সারাদিন শক্তি পাওয়া যায়। কিন্তু সব ভারী খাবারই যে স্বাস্থ্যকর(Healthy) এমনটা কিন্তু নয়। সেক্ষেত্রে আমাদের জানতে হবে সকালের নাস্তায় কোন খাবারগুলো খাওয়া উচিত আর কোনগুলো নয়। তবে আর দেরি না করে চলুন জেনে নেই সকালের নাস্তার কিছু স্বাস্থ্যকর খাবার(Healthy food) সম্পর্কে।

সকালের নাস্তা যেমন হওয়া উচিত

১. ডিমঃ
ডিমকে বলা হয় ‘সুপারফুড’। ডিমে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন(Vitamin) এবং মিনারেলস। প্রোটিনের সব চাইতে ভালো উৎস হচ্ছে ডিম। এতে ক্যালোরিও থাকে বেশ কম। সকালের নাস্তায় অবশ্যই প্রত্যেকের ডিম খাওয়া উচিৎ। তবে যারা একটু বেশি স্বাস্থ্যবান তাদের ডিমের কুসুম(Yolk) এড়িয়ে যাওয়া উচিৎ।

আরো পড়ুন  যে কোনো নারীকে যৌন মিলনে আগ্রহী করার উপায়

২. ফলঃ
সকালের নাস্তার জন্য সব চাইতে ভালো খাবার হচ্ছে ফলমূল। কলা, আপেল, কমলা, আঙুর ইত্যাদি ধরণের ফলমূল অথবা মৌসুমি ফলমূল দিয়ে সকালের নাস্তা করা সব চাইতে ভালো। ২টি কলা, ১টি আপেল, ১টি কমলা, ২/৩টি স্ট্রবেরি(Strawberry) এভাবে শুধুমাত্র ফল দিয়ে নাস্তা করা সকালের জন্য ভালো।

৩. আটার রুটিঃ
সকালের নাস্তার জন্য বেশ ভালো একটি খাবার হচ্ছে আটার রুটি(Flour bread)। বিশেষ করে যারা ভারী খাবার পছন্দ করেন। সকালে পাউরুটি বা ভাত খাবার চাইতে আটার রুটি সবজি ভাজি বা ডিম অথবা ঝোলের তরকারি কিংবা কলা দিয়ে খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ভালো। এছাড়া রুটি বেশ ভালো এনার্জি(Energy) সরবরাহ করে আমাদের দেহে যা পুরো দিনই রাখবে সতেজ।

আরো পড়ুন  মাত্র ১ বার ব্যবহারে দাদ,চুলকানি ও চর্মরোগ এর মত সমস্যা দূর হবে।সারাজীবনেও আর চর্মরোগ ফিরে আসবে না

৪. ওটসঃ
ওটস(Oats) জিনিসটা খেতে ভালো না লাগলেও এটি আমাদের দেহের জন্য অনেক ভালো একটি খাবার। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার। ওজন কমাতে এবং কলেস্টোরল নিয়ন্ত্রণে রাখতে ওটসের জুড়ি নেই। তাই সকালের নাস্তায় একবাটি ওটস রাখুন। তবে কোন ফ্লেভারড বা চিনিযুক্ত ওটমিল খাবেন না। চিনির পরিবর্তে মধু(Honey) এবং সাথে কিছু ফলমূল যোগ করে নিতে পারেন।

৫. খিচুড়িঃ
অনেকেরই সকালে ভাত(Rice) খাওয়ার অভ্যাস। তারা ভাতের বদলে সকালের নাস্তায় রাখতে পারেন খিচুড়ি। তবে অবশ্যই সবজি(Vegetable) খিচুড়ি। চালের পরিমাণ কমিয়ে বেশি পরিমাণে সবজি দিয়ে রান্না করা সবজি খিচুড়ি দিয়ে সেরে নিতে পারেন সকালের নাস্তা। এতে করে ভারী নাস্তা করা হলেও দেহে পৌঁছাবে পর্যাপ্ত পুষ্টি(Nutrition)।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *