Breaking News
Home / প্রশ্ন উত্তর / অন্ডকোষ ঝুলে থাকা কি কোন রোগ? অন্ডকোষ ঝুলে গেছে কারন কি এবং এর থেকে কিভাবে মুক্তি পাবো?

অন্ডকোষ ঝুলে থাকা কি কোন রোগ? অন্ডকোষ ঝুলে গেছে কারন কি এবং এর থেকে কিভাবে মুক্তি পাবো?

প্রশ্নঃ অন্ডকোষ ঝুলে থাকা কি কোন রোগ? অন্ডকোষ ঝুলে গেছে কারন কি এবং এর থেকে কিভাবে মুক্তি পাবো?

আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ।

গ্রাহক,আমি কি আপনাকে কিছু প্রশ্ন (question) করতে পারি? আপনার বয়স কত? আপনার এই সমস্যা টি কত দিন ধরে হচ্ছে? যৌন মিলনের সময় কি আপনার তাড়াতাড়ি বীর্যপাত হয়ে যায়? আপনি কি হস্তমৈথুন করেন? বা আপনার কি স্বপ্নদোষ হয়?

যৌন মিলনের সময় আপনার যদি তাড়াতাড়ি বীর্যপাত হয়ে যায় তাহলে এই সমস্যা টা কে বলা হয় premature ejaculation.

কিছু lifestyle পরিবর্তনের মাধ্যমে আপনি উপকৃত হতে পারেন যেমন-

-নিয়মিত ব্যায়াম করা

-পর্যাপ্ত পরিমানে ঘুম ও বিশ্রাম (rest) নেয়া।

-নিয়মিত পুষ্টিকর খাদ্য খাওয়া।

-সেক্স করার আগে বেশি করে foreplay করা।

-আপনার smoking বা alcohol এর অভ্যাস থাকলে তা পরিহার করুন।

-আপনি relaxation technique চেষ্টা করে দেখতে পারেন।

– যৌন মিলনের সময় মাইন্ড কে একটু distract করার চেষ্টা করে দেখতে পারেন।

-anxiety বা depression এ ভুগলেও এমন টা হতে পারে।কোন কিছু নিয়ে বেশি দুশ্চিন্তা করবেন না।

গ্রাহক,সেক্স এর সময় nervousness এর কারণে বীর্যপাত আগে আগে হয়ে যেতে পারে।তাই এই বিষয়ে আপনার পার্টনার এর সাথে খোলাখুলি কথা বলে নিবেন। সেক্স করার সময় যদি মানসিক ভাবে আপনারা একে অপরের কাছাকাছি আসতে পারেন তাহলে এই সমস্যা গুলো আর হবেনা। সেক্স এর সময় কনডম ব্যবহার করলেও এই সমস্যাটি হবেনা।
এতেও কাজ না হলে আপনি একজন Urology specialist এর কাছে যেতে পারেন।

গ্রাহক, অণ্ডকোষ ঝুলে যাওয়া কোন সমস্যা নয়। অণ্ডকোষের কাজ হল শুক্রাণুর জন্য যথাযথ তাপমাত্রার যোগান দেয়া। যেহেতু গরমকালে শরীরের তাপমাত্রা বেশি থাকে তাই অণ্ডকোষ ঝুলে শরীর থেকে নিচে যায় এবং শুক্রাণুকে যথাযথ তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করে। যদি এটি ঝুলে না যেত তবে শরীরের সাথে লেগে থাকলে (শীতকালে) অতিরিক্ত তাপ পেত। যা শুক্রাণু তৈরি ব্যাঘাত ঘটাত। তাই ভয়ের বা চিন্তার কনো কারন নেই।

অণ্ডকোষ ঝুলে পড়া কোনো রোগ (diseases) নয়। এটা স্বাভাবিক। টেনশনমুক্ত থাকুন।

আরো পড়ুন  প্রশ্নঃ আমার প্রিয়ডের ডেট ১৯-২১। আমি নভেম্বরের ৮ তারিখে মিলন করি কোনরকম প্রোটেকশন ছাড়াই...

আপনার পেনিসের সাইজ যথেষ্ট আছে। সর্বনিম্ন সাড়ে তিন ইঞ্চি পেনিসই যথেষ্ট। সে জায়গায় আপনার পেনিসের আকৃতি বেশ ভালো।

আপনার পেনিস আরেকটু বড় হতেও পারে, তবে নিশ্চিত না। আর সেটা দরকারও নেই।

আপনি এসব ব্যাপারে সম্পূর্ণ সুস্থ আছেন, কোনো ধরনের টেনশন করবেন

আশা করি আপনাকে সাহায্য করতে পেরেছি।

আর কোন প্রশ্ন থাকলে,  জানাবেন,

পুরুষ লি’ঙ্গের পারফেক্ট আকার কত? বড় করার ওষুধ সত্যই কি আছে?

যুগ যুগ ধরে বিভিন্ন খাবার বড়ি, ক্রিম, লকিং মেশিন এবং অস্ত্রপ্রচারের মাধ্যমে পুরুষরা (male) তাদের লিঙ্গের আকার পরিবর্তনের চেষ্টা করে আসছে । আর প্রায় একশত বছরের বেশি সময় ধরে এর জন্য বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা অথবা চেষ্টা করেও লিঙ্গের আকার পরিবর্তনে তেমন একটা ভাল ফলাফল/আবিষ্কার এখন পর্যন্ত করা সম্ভব হয়নি । কারণ সত্যিকার অর্থে খাবার বড়ি, ক্রিম, লকিং মেশিন ইত্যাদির কোনটিই কার্যকর হয়না। বরং এ রকম চেষ্টার ফলে অনেক পুরুষই (male) লিঙ্গত্থান সমস্যাসহ (problem) নানবিধ যৌন জটিলতায় পতিত হচ্ছেন প্রতিনিয়ত ।

ডক্টর মাইকেল ও’লেয়ারী (প্রফেস্যার, হাবর্ড মেডিক্যাল স্কুল, ইউরোলজিষ্ট, ব্রিগহাম এন্ড ওমেন্স হসপিটাল ইন বোষ্টন) বলেন, “বিশ্বাস করুন, আমি যদি জানতাম কি করে নিরাপদে এবং সত্যিকারেই লিঙ্গের আকার বড় করা যায় তাহলে আমি তা প্রেসক্রাইব করে কোটিপতি হয়ে যেতাম। কিন্তু আমি এটা জানিনা ।”

আপনি অবশ্যই জেনে রাখবেন একজন ভালো চিকিত্সক কখনোই অশ্লীল যৌন মিলন (physical relation) সংক্রান্ত বা কোন প্রকার কুরুচিপূর্ণ ছবি দিয়ে আপনাকে মানসিক ভাবে দুর্বল করবে না । আপনার যদি সত্যিই কোন সমস্যা (problem) থেকে থাকে সেটা সারানোর ব্যাপারে সে তৎপর থাকবে।

একটা বিষয় চিন্তা করুন, বাংলাদেশের বড় বড় ঔষধ কোম্পানিগুলি বসে বসে কি করছেন। তারা কেন পেনিস বড় করার ঔষধ তৈরী করেন না ? দেশের বড় বড় খ্যাতনামা যৌন বিশেষজ্ঞ ডাক্তাররা কেন তাদের রোগীদের জন্য প্রেসক্রিপসনে এইসব ঔষধের নাম লিখেন না ? এর কারণ লিঙ্গ বড় করার মত কোনো ওষুধের ফর্মূলা এখনও আবিষ্কার হয়নি। যদি আসলেই স্বাভাবিক পেনিস লম্বা বা মোটা করার কোন ঔষধ থাকত তাহলে অবশ্যই তার সরকারী অনুমোদন থাকত আর সেটি আপনি আপনার পাশের ঔষধের দোকান থেকেই কিনতে পারতেন ।

আরো পড়ুন  কলোজিরার তেল কি উপকার হয় এবং কিভাবে ব্যবহার করতে হয়?

* পেনিসের আকার কতটা হওয়া দরকার ?

প্রায় অর্ধেক প্রাপ্ত বয়স্ক পুরুষ (male)  মনে করেন তাদের পুরষাঙ্গ অনেক ছোট । বিশ্বজুড়ে সাধারনত উত্তেজিত অবস্থায় পুরুষ (male) লিঙ্গের গড় দৈর্ঘ্য হয়ে থাকে ৪.৭ থেকে ৬.৩ ইঞ্চি। অনেকের মতে পেনিসের গড় দৈর্ঘ্য ৫.১-৫.৯ ইঞ্চি। তবে লিঙ্গের আকার ব্যাক্তি এবং অঞ্চলভেদে অনেক পার্থক্য দেখা যায়। বিরল ক্ষেত্রে পারিবারিক (জেনেটিক) এবং হরমোন জনিত সমস্যার(problem) কারনে ৩ ইঞ্চির চেয়েও অনেক ছোট লিঙ্গ দেখা যায়। চিকিত্সা শাস্ত্রে এটি মাইক্রোপেনিস নামে পরিচিত। তবে পেনিস ৪ (চার) ইঞ্চি হলেই স্ত্রীকে অর্গাজন দিতে কোনো প্রকার অসুবিধা হওয়ার কথা নয়। অনেকের ক্ষেত্রে প্রোষ্টেইট ক্যান্সার অপারেশান সহ নানা রোগের কারনে লিঙ্গের আকার ছোট হয়ে যেতে পারে।

* হস্তমৈথুন এবং লিঙ্গের আকার :-

অনেকের ক্ষেত্রেই দেখা যায় দীর্ঘদিন হস্তমৈথুন করার কারণে লিঙ্গের আকার কিছুটা পরিবর্তন (change) হয়ে যায় এবং পেনিসে কিছুটা বক্রতাও সৃষ্টি হয় এর কারণে। কিন্তু তথা কথিত বিশেষজ্ঞরা হস্তমৈথুন করাকে ক্ষতিকর বলার বিপক্ষে, কিন্তু আমাদের দেশের পরিস্থিতিটা সম্পূর্ণ ভিন্ন। যেহেতু ধর্মীয় বিধি নিষেধ আছে, যেমন ইসলামে হস্তমৈথুন করা কবিরা গোনাহ, তাই এটা করলে মানুষের মনে পাপ বোধ জন্মাবে এটাই নিয়ম, তার সাথে সাথে নানা মানুষিক বিপর্যয় দেখা দিবে এটাও অস্বাভাবিক কিছু নয়, তাই হস্তমৈথুনও যৌন সমস্যার(problem) কারণ হয়ে থাকে। তাই হস্তমৈথুন না করাই অতি উত্তম।

তবে লিঙ্গ প্রাকৃতিক ভাবে ছোট বা বড় হয়ে যেতে পারেনা । এটি শুধু উত্তেজনার সময় পর্যাপ্ত রক্ত সঞ্চালনের মাধ্যমে আকার পরিবর্তন(change) করে। দীর্ঘদিন হস্তমৈথুন (এটা অপ্রাকৃতিক এবং কবিরা গুনাহ ) করার কারণে বার বার একই জায়গায় অতিরিক্ত প্রেসারের ফলে অনেকের ক্ষেত্রে পেনিসের আকার কিছুটা পরিবর্তন(change) হতে পারে। তবে হস্তমৈথুন অভ্যাস এবং এ সংক্রন্ত যাবতীয় কুফল দূর করার সফল চিকিত্সা রয়েছে হোমিওপ্যাথিতে। যেটা যৌন ক্ষমতার কোনো ক্ষতি করে না বরং উল্টো আরো যৌন শক্তি বাড়িয়ে থাকে। কিন্তু মন থেকে হস্তমৈথুন করার চিন্তাটাই দূর হয়ে যায়। হোমিও ঔষধ যে কোন রোগের কারণটাকে মূল থেকে দূর করে ফেলে। তবে তার জন্য দরকার অভিজ্ঞ হোমিও ডাক্তার এবং যথাযথ ট্রিটমেন্ট।

আরো পড়ুন  মাসিক ৫দিন পেছানোর জন্য কি ঔষধ খাব, এর নাম কি?

অনেক পুরুষ (male) কিংবা নারী পর্ন ফিল্ম দেখে লিঙ্গের আকার এবং মিলেনের সময় নিয়ে নিজের মধ্যে একপ্রকার নেগেটিভ ধারনা করে রাখে। সত্যিকার অর্থে ছবিতে নায়ক তারাই হয় যারা অন্যদের তুলনায় হ্যান্ডসাম হয়। পর্নষ্টারও তার ব্যতিক্রম নয় । পর্নগ্রাফিতে ক্যামেরা এমন এঙ্গেল এ ধরা হয় যাতে ভিজ্যুয়ালী লিঙ্গকে বড় দেখা যায়। উদাহরন স্বরুপ আপনি যদি কোন একটি উচু স্থানে থেকে নিচে দাড়ানো আপনার কোন বন্ধুর ছবি তোলেন তাহলে তাকে খাটো দেখাবে। তেমনি যদি আপিনি মাটিতে বসে কিছুটা উপরে দাড়ানে অবস্থায় আপনার বন্ধুর ছবি তোলেন তাহলে একই ব্যাক্তিকে অনেক লম্বা দেখাবে। আর সে জন্যই আমরা যখন মাথা নিচু করে আমাদের নিজের লিঙ্গ দেখতে যাই তখন ভিজ্যুয়াল ইল্যুশানের কারনে আমাদের লিঙ্গের আকার প্রকৃত আকারের চেয়ে ছোট দেখা যায়।

এখানে এ বিষয়টি বলে রাখতে চাই পর্ন ফিল্মে দেখা যায় একই যুগল ২০/২৫ মিনিট মিলন করছে। সত্যিকার অর্থে তাদের এই ২০ মিনিট এর মিলন দৃশ্যের শুটিং হয়েছে ২/৩ দিন ধরে। তাদের অনেকবারের মিলনের দৃষ্টিনন্দন অংশগুলো ভিডিও এ্যাডিটে কাট-ছাট করে একটি ক্লিপ বাজারে আসে। তাই পর্ন ফিল্ম দেখে পেনিসের আকার এবং মিলনের সময় নিয়ে আমাদের হতাশ হবার অবকাশ নেই । কারণ সমীক্ষায় দেখা গেছে, ওই সব দেশের বেশির ভাগ পুরুষরই (male) ২-৩ মিনিটের বেশি মিলন করতে পারে না। এটা হলো তাদের বাস্তব চিত্র।

যৌন তৃপ্তির জন্য লিঙ্গের আকার মুল বিষয় নয়। প্রধান বিবেচ্য বিষয় হচ্ছে মিলনে এবং সিঙারে আপনার কারুময়তা । আপনি যত বেশি সৃষ্টিশীল পদ্ধতিতে স্ত্রীকে “অন” করবেন সে তত বেশি আপনার পার্সোনালিটির প্রতি আবেগী হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *