প্রতি পরিবার থেকে একজনকে চাকরি দেওয়ার উদ্যোগ

আসন্ন বাজেটে ‘প্রতি পরিবার থেকে একজনকে চাকরি (job) দেওয়ার উদ্যোগ’ নেওয়া হচ্ছে। গ্রামকে শহরে রূপান্তর এবং প্রতি পরিবার থেকে চাকরি (job) দেওয়া—এ দুটি বিষয়কে গুরুত্ব দিয়েই এবারের বাজেট প্রণয়নের কাজ করছে অর্থ বিভাগ। ওই দুটি বিষয়ে বিশেষ নজর দিতে নির্দেশনা রয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। এ জন্য পল্লী খাতে বিশেষ বরাদ্দ দেওয়া হবে। অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সূত্র মতে, ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারকে প্রাধান্য দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে আসন্ন বাজেট। মূল প্রতিপাদ্য ধরা হচ্ছে ‘গ্রাম হবে শহর’। গ্রামকে ধীরে ধীরে শহরে রূপান্তর করার রূপরেখা তুলে ধরা হবে বাজেটে।

জানা গেছে, অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল প্রথমবারের মতো জাতীয় সংসদে বাজেট উপস্থাপন করবেন আগামী ১৩ জুন। পাঁচ লাখ ২৪ হাজার কোটি টাকার বেশি অঙ্কের যে বাজেট তিনি উপস্থাপন করবেন তাতে বেশ কিছু ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম থাকবে।

আরো পড়ুন  প্রাথমিকে নিয়োগ পরীক্ষার প্রবেশপত্র পাবেন যেভাবে

প্রথমত, পুরো বাজেট সাজানো হচ্ছে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারের ভিত্তিতে।

দ্বিতীয়ত, মানে ও আকারে বৃহৎ হলেও বাজেট হবে সংক্ষিপ্ত।

অর্থ বিভাগের বাজেটসংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, আসছে বাজেটে গ্রাম আধুনিকায়ন এবং বেকারত্ব কমিয়ে আনার প্রয়াস থাকবে। এ জন্য পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের একটি উদ্যোগকে রোল মডেল হিসেবে নেওয়া হচ্ছে। ভারতে ‘এক শ দিনে কর্মসৃজন’ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল।

উদ্যোগটি ঘিরে বিতর্ক থাকলেও সফলতা পেয়েছে দেশটি। বিশেষ করে প্রত্যন্ত অঞ্চলে সফলতা মিলেছে। অনেকটা সে আদলে প্রাথমিকভাবে প্রতি রিবারের একজনকে চাকরি (job) দেওয়ার উদ্যোগ নিয়ে কাজ করছে অর্থ বিভাগ। এ জন্য ‘কর্মসৃজন’ নামে আলাদা একটি প্রকল্প হাতে নেওয়া হতে পারে। এটি বাস্তবায়ন করা হতে পারে সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্বে।

আরো পড়ুন  তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত এখন আর পরীক্ষা থাকছে না

অর্থ বিভাগ সূত্রে জানা যায়, আসছে বাজেটে সাধারণ মানুষের চাওয়া-পাওয়াকে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। সে জন্য প্রান্তিক কৃষক থেকে শুরু করে দিনমজুর যাতে উপকৃত হয় সে ব্যবস্থা রাখার চেষ্টা করছে অর্থ বিভাগ। জেলা, উপজেলা পর্যায়ে যেসব গ্রাম পিছিয়ে রয়েছে সেগুলো উন্নত হলে তার সরাসরি প্রভাব পড়বে প্রান্তিক মানুষের ওপর। এ জন্য গ্রামে শহরের সুযোগ-সুবিধা দেওয়ার একটি রূপরেখা তুলে ধরা হবে বাজেটে।

সূত্র মতে, বাজেটে বেকারত্ব কমিয়ে আনা এবং তরুণ নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠার বেশ কিছু উদ্যোগের কথা থাকবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ইচ্ছায় এ উদ্যোগের কথা বিশেষভাবে বলা হবে।

বাজেটসংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, আধুনিক বাংলাদেশ গড়তে হলে প্রথমেই বেকারত্ব কমিয়ে আনা এবং শহর নির্ভরতা কমাতে হবে। অর্থমন্ত্রী এ বিষয়ে বিশেষ দিকনির্দেশনা দিয়েছেন। প্রতি পরিবার থেকে চাকরি (job) দেওয়ার উদ্যোগ নিলে বেকারত্ব কমে আসবে বলে আশা করছে সরকার।

আরো পড়ুন  সমন্বিত ৫টি ব্যাংকের বিকল্প প্রবেশপত্র প্রকাশ সাথে দেখে নিন সিট প্লান

Leave a Reply

Your email address will not be published.