স্থায়ীভাবে ত্বক উজ্জ্বল ও সুন্দর করার কার্যকরী ঘরোয়া টিপস

ত্বকের (skin) স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা নানা কারণেই হারিয়ে যেতে পারে। তাই জন্মসূত্রে পাওয়া ফর্সা ত্বকও (skin)একটা সময় পর অনুজ্জ্বল হয়ে পড়ে। ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে হলে প্রয়োজন নিয়মিত যত্নের। রইলো তেমনই কিছু টিপস। ত্বকের রং আরও উজ্জ্বল করার জন্য ত্বকে (skin)দই লাগিয়ে প্রায় বিশ মিনিট রেখে দিন তারপরে ধুয়ে ফেলুন। এভাবে সপ্তাহে তিন থেকে চারদিন লাগাবেন।

প্রথমে লেবুর রস ও ডিমের সাদা অংশ সম পরিমাণে মিশিয়ে তা মুখে লাগিয়ে রাখুন প্রায় বিশ মিনিট তারপর ধুয়ে ফেলুন। ত্বক (skin)সুন্দর হবে। আধা টুকরা করা পাকা কলা নিন এরপর ভালোভাবে চটকে এর মধ্যে কয়েক ফোঁটা শসার রস মেশান। তারপর মুখে লাগিয়ে প্রায় আধাঘণ্টার মতো রেখে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। যাদের ত্বক অনেক শুষ্ক তারা এক চা-চামচ লাল মসুর এর ডাল গুড়া করে রাতভর দুধের মধ্যে ভিজিয়ে রাখুন তারপর মুখে ও গলায় মাখিয়ে প্রায় বিশ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

মেওয়া আর দুধ একসঙ্গে সুন্দর করে বেটে নিন। প্রতিদিন দুই মিনিট করে এই মিশ্রণ মুখে ও গায়ে মাখিয়ে রাখুন। তারপর ধুয়ে ফেলুন ঠান্ডা পানিতে। একটানা প্রায় ১৫ দিন এক চিমটে জাফরান ও কাঁচা দুধে মিশিয়ে মুখে লাগান প্রত্যেকদিন তারপর ফলাফল দেখুন। যাদের ত্বক তৈলাক্ত তারা মুগের ডাল গুড়ো করে সামান্য পানিতে ভিজিয়ে প্রত্যেক সপ্তাহে একদিন করে মুখ স্ক্রাব করুন কারণ ত্বকের (skin)উপরে মরে যাওয়া কোষের পরত জমে মুখের ত্বক অনেক কালো দেখায়।

তৈলাক্ত ত্বক (skin)হলে এক চা-চামচ কমলালেবুর শুকনো খোসা গুড়ো, এক চা-চামচ মেথি গুড়ো ও কমলালেবুর রস দিয়ে ভালোভাবে মুখে মাখুন। এরপর ধুয়ে ফেলুন। মধুর সাথে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে মুখে ভালোভাবে লাগিয়ে রাখুন প্রায় পনেরো মিনিট। এরপর ধুয়ে ফেলুন। মধু আপনার ত্বককে (skin)উজ্জ্বল করবে এবং লেবু প্রাকৃতিকভাবে ব্লিচিং করবে।

আরো পড়ুন  মাত্র ৭ দিনে নজরকাড়া ফর্সা ত্বক পাওয়ার জাদুকরী ঘরোয়া উপায়

শুষ্ক ত্বকের ক্ষেত্রে চন্দন, মালাই আর সামান্য হলুদ একসাথে মিশিয়ে মুখে লাগান। তাতে ত্বক উজ্জ্বল হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.