উজ্জ্বল ত্বক

মাত্র ১ মাসে উজ্জ্বল ত্বক পাওয়ার ২৩টি ঘরোয়া টিপস

আয়নায় যতবার নিজের চেহারা দেখেন ততবার হতাশাবোধ করেন? ভাবেন কেন আপনার ত্বক(skin) আর একটু উজ্জ্বল নয়? এমন অনেকেই আছেন যারা মার্কেট থেকে শতশত ব্র্যান্ডের কেমিক্যাল লোডেড স্কিন লাইটেনিং বিউটি প্রোডাক্ট কিনে থাকেন তার ইয়াত্তা নেই। এইসব প্রোডাক্টের দাম যেমন বেশি তেমন আমাদের ত্বকে(skin) এগুলোর খারাপ প্রভাবও কম নয়। যারা চান তাদের ত্বক(skin) স্বাভাবিক বা প্রাকৃতিকভাবে একটু লাইটেন বা উজ্জ্বল(bright) করে তুলবেন আজকের আর্টিকেলটি তাদের জন্য। অনেক সময় আমাদের কিছু ভুল অভ্যাস আর অবহেলার জন্য ত্বক মলিন হয়ে যায়। আজকে আমরা দেখব কীভাবে শুধুমাত্র ২৩ টি টিপস মেনে চলে এক মাসের মধ্যে পেতে পারি সুন্দর গ্লোয়িং ত্বক(skin)। তবে চলুন দেরি না করে দেখে নেই টিপস গুলো কী কী …

১। প্রথমে যাদের মুখে হাত দেয়ার বদভ্যাস আছে তাদের এই অভ্যাসটা বদলাতে হবে। কারণ আপনার হাতের আঙ্গুলে বিভিন্ন প্রকার bacteria থাকতে পারে যাতে আপনার স্কিনে সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই যতটা সম্ভব মুখে হাত দেয়া থেকে বিরত থাকুন।

আরো পড়ুন  ত্বক ফর্সা করার ১০টি সহজ উপায় জেনে নিন

২। আপনার বালিশের কভারটি সপ্তাহে অন্তত একবার পরিষ্কার করুন। কারণ এতে আপনার স্কিনে ব্যাকটেরিয়া জনিত সমস্যা দেখা দিতে পারে।

৩। আপনার মুঠোফোনটি অ্যালকোহল প্যাড দিয়ে পরিষ্কার করুন। এটি অপরিষ্কার অবস্থায় সবথেকে বেশি সময় আপনার এবং আপনার মুখের সংস্পর্শে থাকে।

৪। স্যালিসিলিক অ্যাসিড যুক্ত ক্লিঞ্জার(Clinger) ব্যবহার করুন।

৫। মুখ ধোয়ার পর আপনার স্কিন তোয়ালের পরিবর্তে টি শার্ট দিয়ে মুছুন কারণ টি শার্ট অনেক নরম। কিছু তোয়ালের ঘষা লেগে আপনার স্কিনে অতি খুদ্র আঁচড় পড়তে পারে যেখানে ব্যাকটেরিয়া আক্রমণের সম্ভাবনা থাকে।

৬। মুখ ধোয়ার পর টোনার ব্যবহার করুন। এটি আপনার মুখের ন্যাচারাল অয়েল না ভেঙ্গে সুক্ষ ছিদ্রগুলো পরিষ্কার করবে।

৭। যতটা সম্ভব কম মেকআপ(Makeup) করুন।

৮। আপনার makeup ব্রাশগুলো ব্যাকটেরিয়া থেকে রক্ষা করতে প্রতি সপ্তাহে (every week) একবার পরিষ্কার করুন।

৯। ভালো কোন ফেস oil দিয়ে আপনার স্কিন ম্যাসেজ করুন এটি আপনার স্কিন ব্রেকেজ থেকে রক্ষা করবে।

১০। যখনি রোদে বের হবেন এস পি এফ ৩০ যুক্ত সানস্ক্রিন লাগাতে ভুলবেন না।

আরো পড়ুন  রাতে ত্বকের যত্ন নিতে যা যা করবেন

১১। যদি আপনি গোসলের সময় মুখ ধুয়ে থাকেন তবে অবশ্যই আপনারর মুখ(Face) ধোয়ার পূর্বে চুল ধুয়ে নিন কারণ শ্যাম্পু অথবা কন্ডিশনারের অবশিষ্টাংশ স্কিনে থেকে যায় যা থেকে আপনার স্কিন ইরিটেশন হতে পারে।

১২। আপনার হেয়ার লাইনের আশেপাশে যদি ব্রণ উঠে থাকে তবে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আপনার shampoo চেঞ্জ করে নিন। কারণ আপনার স্কিন এতে রিএ্যাক্ট করছে।

১৩। আপনার চিবুকের অংশে বড় কোন acne উঠে থাকলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন কারণ এটি হরমনাল জনিত কারণে হতে পারে।

১৪। প্রচুর পরিমাণে সবুজ শাক-সবজি খাবার তালিকায় যোগ করুন এটি আপনার স্কিন ক্লিয়ার করবে।

১৫। খাবার তালিকা থেকে কিছুদিনের জন্য মিষ্টি এবং ডেইরি জাতীয় food বাদ দিয়ে দিন পরীক্ষা করতে যে আপনার স্কিনে কোন পরিবর্তন আসছে কিনা। অনেকের স্কিন এতে তাড়াতাড়ি ক্লিয়ার হতে শুরু করে।

১৬। সপ্তাহে ২ দিন মুখে স্ক্রাব করুন। এতে স্কিনের মরা কোষ উঠে স্কিন উজ্জ্বল করবে।

আরো পড়ুন  ত্বকের দাগ দূর করতে ১৫টি টিপস

১৭। মুখে ব্রণ থাকলে রাতে অ্যাস্পিরিন tablet দিয়ে একটি স্পট ট্রিটমেন্ট নিন। ৫থেকে ৬ টি tablet নিয়ে অল্প পানি দিয়ে ভালোভাবে মিক্স করে পেস্ট তৈরি করুন। এরপর এটি ব্রণের লাগিয়ে রাখুন সারারাত এবং সকালে উঠে ধুয়ে নিন।

১৮। ১৫ দিনে একবার facial করুন স্কিন ডিপ ক্লিন করতে। আপনি চাইলে প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে ঘরে বসে করতে পারেন।

১৯। মেকাপ(Makeup) না পরিষ্কার করে কখনই ঘুমাবেন না। যদি খুব আলসেমি হয় তবে সাধারণ ক্লিঞ্জার দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন।

২০। পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমানোর চেষ্টা করুন এবং চিন্তা মুক্ত থাকুন এটা আপনার স্কিনের জন্য খুব প্রয়োজনীয়।

২১। প্রচুর পরিমাণে water পান করুন। আর নিজেই তফাৎ দেখুন। এটা শুধু আপনার স্কিন না, আপনাকেও সুস্থ রাখবে।

২২। আপনার স্বাস্থ্য এবং স্কিনের ব্যালেন্স ঠিক রাখতে সপ্তাহে কমপক্ষে ৩ দিন ব্যায়াম(Exercise) করুন।

২৩। সবসময় পরিষ্কার পরিছন্ন থাকুন এতে নিজেকে অনেক কনফিডেন্ট মনে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *