মেকআপ

মেকআপ দেখতে ন্যাচারাল এবং সুন্দর না হলে কি করবেন?

ন্যাচারাল বিউটি তো সবারই কাম্য। কিন্তু আমাদের প্রায় সবার স্কিনে কিছু না কিছু ইম্পারফেকশন রয়েছে। তাই সেগুলো ঢেকে ফেলে নিজের সৌন্দর্য ফুটিয়ে তুলতে আমরা মেকাপ(Makeup) ব্যবহার করে থাকি। মেকাপ ব্যবহার করতে গিয়ে অনেকেরই অভিযোগ থাকে- মেকআপ মুখে ভেসে আছে, মেকাপ বসে না, মেকআপ দেখতে কেকি লাগে, মেকআপ করলে ন্যাচারাল দেখায় না ইত্যাদি। কিছু ভুলের জন্যে এ সমস্যাগুলো হয়। তবে কিছু বিষয় খেয়াল রাখলে এবং মেনে চললে মেকআপ(Makeup) দেখতে ন্যাচারাল এবং সুন্দর লাগবে। চলুন জেনে নিই, কিছু টিপস।

(১) মেকাপের আগে অবশ্যই স্কিনকে মেকাপের জন্য প্রস্তুত করে নিতে হবে। আর এজন্য স্কিন স্ক্রাব(Skin scab) করে নিয়ে অবশ্যই ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিতে হবে। ময়েশ্চারাইজার আমাদের স্কিনে মেকআপ বসতে সাহায্য করে এবং মেকাপ ফেটে যাওয়া রোধ করে।

(২) মেকাপে ফাউন্ডেশন ব্যবহারের ক্ষেত্রে একটু সতর্ক হতে হবে। ফাউন্ডেশনে ন্যাচারাল ফিনিশ চাইলে ব্যবহার করুন স্যাটিন ফিনিশের ফাউন্ডেশন(Foundation)। এই ফাউন্ডেশনগুলো খুব বেশি ম্যাট অথবা খুব বেশি ডিউয়ি নয়। ফলে এটি স্কিনে দেখতে ন্যাচারাল লাগে।

আরো পড়ুন  ফাউন্ডেশন দীর্ঘস্থায়ী করার সহজ উপায় জেনে নিন

(৩) ফাউন্ডেশনে ন্যাচারাল ফিনিশ পেতে আর একটি জিনিষ খুব কাজে দেয়। তা হলো বেবী অয়েল। ফাউন্ডেশন ব্যবহারের আগে তা হাতে ঢেলে নিয়ে এর মধ্যে ১ ফোটা বেবী অয়েল(Baby oil) মিক্স করে নিন। এরপর ফাউন্ডেশন মুখে ব্যবহার করুন। এতে আপনার ফাউন্ডেশন দেখতে খুবই ন্যাচারাল লাগবে।

(৪) ব্যবহার করুন ফুল কভারেজ ফাউন্ডেশন। ফুল কভারেজ ফাউন্ডেশনে বেশি কভারেজ থাকার কারণে আপনার অনেক বেশি ফাউন্ডেশনের লেয়ার করার প্রয়োজন পড়বে না।অল্প একটু তেই কাজ চলে যাবে। ফলে মেকাপ(Makeup) ভারী দেখাবে না। ফাউন্ডেশন যতটুকু দরকার ঠিক ততটুকুই ব্যবহার করুন। অতিরিক্ত ফাউন্ডেশন ব্যবহার করলে মেকআপ দেখতে ন্যাচারাল লাগে না।

(৫) অনেকেই আছেন দাগ-ছোপ ঢাকার জন্যে ফাউন্ডেশনের আগে কনসিলার(consuler) ব্যবহার করে থাকে। কনসিলারে অনেক বেশি কভারেজ থাকে। এটি ফাউন্ডেশনের কাজই করে। তাই মুখের অনেক এড়িয়া জুড়ে কনসিলার ব্যবহারের পর, তার উপরে ফাউন্ডেশন ব্যবহার করলে মুখ দেখতে কেকি লাগতে পারে। তাই আগে ফাউন্ডেশন(Foundation) ব্যবহার করুন। ফাউন্ডেশন দাগ-ছোপ অনেক খানি কভার করে দিবে। এরপরেও যদি দাগ-ছোপ বোঝা যায়, তবে শুধুমাত্র সেই সব স্থানেই কনসিলার ব্যবহার করুন।

আরো পড়ুন  চোখের বয়স ধরে রাখুন কিছু আই ক্রিম ব্যবহার করে

(৬) অনেকেই আছে ফাউন্ডেশন(Foundation) হাত দিয়ে ব্লেন্ড করেন। এতে ফাউন্ডেশন ঠিকমতো মুখে বসে না এবং ভেসে থাকে। তাই ফাউন্ডেশন অথবা কনসিলার ব্লেন্ড করার জন্যে বিউটি ব্লেন্ডার ব্যবহার করাই হচ্ছে আদর্শ উপায়। কারণ বিউটি ব্লেন্ডার এমন একটি মেকাপ টুল, যা ফাউন্ডেশন /কনসিলার স্কিনে সুন্দরভাবে বসাতে সাহায্য করে এবং যতটুকু ফাউন্ডেশন /কনসিলার(consuler) মুখে দরকার ততটুকুই মুখে ব্লেন্ড করে বাকিটা শুষে নেয়। ফলে ফাউন্ডেশন ভালোভাবে বসে, ভেসে থাকে না এবং কেকি লাগে না। বিউটি ব্লেন্ডার দিয়ে চেপে চেপে ব্লেন্ড করে নিতে হয়।

(৭) মেকআপ সেট করার জন্যে আমরা পাউডার ব্যবহার করে থাকি। পাউডার ব্যবহার করার সময় অবশ্যই সতর্ক থাকতে হবে। খুবই অল্প পরিমানে পাউডার নিয়ে ফেসে ব্যবহার করতে হবে। অতিরিক্ত পরিমানে পাউডার মেকাপ কেকি হয়ে যাওয়ার মূল কারণ।

(৮) আমরা যখন লং টাইমের জন্যে মেকআপ নিই, তখন ৩-৪ ঘন্টা পর পর আমাদের মেকাপ টাচ আপ করার প্রয়োজন হয়, বিশেষ করে অয়েলি স্কিন যাদের। মেকআপ টাচ আপ করার সময় অবশ্যই মুখের ঘাম টিস্যু পেপার দিয়ে মুছে নিতে হবে এবং অয়েল ব্লটিং পেপার দিয়ে শুষে নিতে হবে। এরপর মেকাপ পাউডার(Makeup powder) দিয়ে টাচ আপ করে নিবেন। ঘাম এবং অয়েল না মুছে টাচ আপ করলে মেকআপকেকি দেখাবে এবং বাজে লাগবে।

আরো পড়ুন  মেকআপ ছাড়াই চিরকাল সুন্দর থাকার ১০টি সহজ টিপস

(৯) অনেকেই আছেন তাড়াহুড়ো করে মেকাপ(Makeup) করে ফেলেন। এতে অনেক সময় সবকিছু ভালোভাবে ব্লেন্ড করা হয় না। তাতে মেকাপ ভালোমতো বসে না এবং ভেসে থাকতে পারে। তাই মেকআপ সবসময় সময় নিয়ে আস্তে আস্তে ব্লেন্ড করে করতে হবে।

(১০) মেকআপ ন্যাচারাল দেখতে লাগার জন্যে এবং মেকাপের পাউডারি ভাব দূর করার জন্যে জাদুকরি কাজ করে মেকআপ সেটিং স্প্রে। মেকাপ(Makeup) শেষে মুখে ২-৩ বার মেকআপ সেটিং স্প্রে ব্যবহার করে নিন।

এই তো জেনে নিলেন, টিপসগুলো। এই টিপসগুলো ফলো করে মেকাপ নিলে তা দেখতে অবশ্যই ন্যাচারাল লাগবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *