শীতে শুষ্ক ত্বকের বিশেষ যত্ন

আপনার ত্বক যদি প্রাকৃতিকভাবেই শুষ্ক হয়, তা হলে কিন্তু আগামী কয়েকটা মাস আপনাকে একটু বাড়তি সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে, না হলে ত্বকের(Skin) শুষ্কতা খুব ভোগাবে। সামান্য একটু সচেতন হলেই কিন্তু এ সমস্যার হাত থেকে নিজেকে বাঁচানো সম্ভব। আসুন তাহলে আজ জেনে নেই এ শীতে কীভাবে নেবেন শুষ্ক ত্বকের বাড়তি যত্ন। ঘরোয়া উপায়ে।

অলিভ অয়েল
অলিভ অয়েল সাধারণত সব ধরনের ত্বকের পক্ষেই খুব কার্যকর। এর মধ্যে উপস্থিত ফ্যাটি অ্যাসিড ও অ্যান্টিঅক্সিডান্ট শুধু আপনার মুখ নয়, পুরো শরীরের ত্বকের যত্ন নেয়। স্নানের আধ ঘণ্টা আগে মুখে ও পুরো শরীরে অলিভ অয়েল(Olive oil) মেখে নিন। তারপর হালকা গরম পানিতে গোসল সেরে লাগিয়ে নিন ময়েশ্চরাইজার। এতে আপনার শরীরের সমস্ত মৃত কোষ উঠে যাবে। তারপর গোসল করে হালকা ময়েশ্চরাইজার লাগিয়ে নিন।

আরো পড়ুন  ঘরোয়া উপায়ে ধবধবে ফর্সা ত্বক পেতে এখুনি এই ফেসপ্যাক ব্যবহার করুন

অ্যালোভেরা
অ্যালোভেরা এমনই একটি উদ্ভিদ, যা টবে লাগালে খুব সহজেই বেড়ে ওঠে। একটি অ্যালো ভেরা পাতা নিন, মাঝখান থেকে কেটে ফেলুন সেটিকে। শাঁসটা বের করে নিয়ে ত্বকে লাগিয়ে নিন। জ্বালাভাব, চুলকানি মুহূর্তে কমে যাবে। সেরে যায় ছোটখাটো ইনফেকশনও।

নারিকেল তেল
মুখ ও শরীরের ত্বকের পাশাপাশি গোড়ালি, হাঁটু, কনুইয়েরও বিশেষ খেয়াল রাখা প্রয়োজন, বিশেষ করে শীতকালে। না হলে এগুলো রুক্ষ ও কালো হয়ে যায়। প্রথমে এ অংশের ত্বক ভিজিয়ে রাখুন পানিতে। ত্বক(Skin) যখন কুঁচকে যাবে, তখন বুঝবেন যা যথেষ্ট আর্দ্রতা পেয়েছে। জমা তেলের মোটা পরত লাগিয়ে নিন আর্দ্র ত্বকে। তারপর মোজা বা লম্বা হাতা টপ বা পাজামা পরে ঘুমোতে যান। টানা বেশ কয়েক দিন করলে নিজেই ফারাকটা বুঝতে পারবেন।

আরো পড়ুন  রাতে মুখে ব্যবহার করার জন্য ৪টা সেরা ফেসপ্যাক

কমলালেবু
কমলালেবুতে উপস্থিত ভিটামিন সি(Vitamin C) ঠেকিয়ে রাখে বলিরেখা। কমলালেবুর খোসা, সরবাটা, ময়দা বা বেসনের প্রলেপের ব্যবহার রূপটান হিসেবে বহুদিন প্রচলিত।

মেয়োনিজ
শুনতে একটু অদ্ভুত লাগলেও মেয়োনিজ কিন্তু ত্বকের আর্দ্রতা ফিরিয়ে আনতে দারুণ কার্যকর। তবে মেয়োনিজে সাধারণত নুন, গোলমরিচ, মাস্টার্ড পাউডার ইত্যাদি যোগ করা হয় স্বাদ বাড়ানোর জন্য। এ জিনিসগুলো যোগ করার আগে খানিকটা তুলে রেখে দিন মাস্ক হিসেবে ব্যবহারের জন্য।

মধু ও পাকা কলা
পাকা কলা ও মধু একসঙ্গে ব্লেন্ড করে নিন। মুখে লাগান প্রলেপের মতো করে, তার পর ২০-২৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন ও ময়েশ্চরাইজার লাগান। এটি নিয়মিত ব্যবহারের ফলে ত্বক পাবে প্রয়োজনীয় আর্দ্রতা, তা হয়ে উঠবে নরম ও কোমল। পাকা কলা, মধু(Honey) আর সরের প্রলেপও শুষ্ক ত্বকের খুব ভালো দাওয়াই হতে পারে।

আরো পড়ুন  নিখুঁত ত্বক পেতে গ্রিন টি দিয়ে তৈরি করুন দারুন ৪টি ফেসপ্যাক

আমন্ড তেল
আমন্ড তেলে প্রচুর ভিটামিন ই থাকে এবং তা আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায় ও ত্বককে করে তোলে মসৃণ। ত্বক খুব সহজেই এ তেল শুষে নেয়, কিন্তু চটচটানি অনুভূত হয় না। অ্যালোভেরা(Aloe Vera) জেলের সঙ্গে কয়েক ফোঁটা আমন্ড তেল আর মধু মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে মুখে লাগিয়ে গরম পানিতে ধুয়ে ফেলুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *