চুল ও ত্বকের সৌন্দর্য ফেরাতে ডিম কীভাবে ব্যবহার করবেন

চুল ও ত্বক আমাদের ব্যক্তিত্ব এবং চেহারায় অনেকখানি প্রভাব ফেলে। কিন্তু প্রশ্ন হলো আমরা কয়জন এই চুল (hair) ও ত্বকের ঠিকমত যত্ন নিতে পারি?

প্রতিদিনের ধুলোবালিতে আমাদের চুল ও ত্বকের জৌলুস হারিয়ে ফেলছি। আর এই চুল ও ত্বকের জৌলুস ফেরাতে ডিমের (egg) জুরি নেই। এর মধ্যে থাকা প্রোটিন অ্যালবুমিন ও ভিটামিন শরীরের পক্ষে দারুণ উপকারী। এই পুষ্টি আপনি চুল (hair)ও ত্বকের স্বাস্থ্য ফেরাতেও ব্যবহার করতে পারেন। জেনে নিন কিভাবে:

স্বাস্থ্যজ্জ্বল চুল পেতে
ডিম(egg) ও মধু ময়েশ্চারাইজ করে চুল (hair)। ডিম পুষ্টি জোগায়। দুটো ডিম(egg) , দুই টেবল চামচ দুধ ও এক টেবল চামচ মধু মিশিয়ে চুলে লাগান। ৩০ মিনিট লাগিয়ে রেখে শুকিয়ে গেলে শ্যাম্পু করে ফেলুন।
শুষ্ক স্ক্যাল্প-এর সমস্যা
শীতকালে স্ক্যাল্প শুষ্ক মনে হলে দুটো ডিম(egg) , ১-২ টেবল চামচ এক্সট্রা ভার্জিন অলিভ অয়েল মিশিয়ে চুলে লাগান। ৩০-৪৫ মিনিট রেখে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

তৈলাক্ত চুলের সমস্যায়
অতিরিক্ত তৈলাক্ত চুলের সমস্যায় দুটো ডিমের (egg) সাদা অংশ ফেটিয়ে ১ টেবল চামচ লেবুর রস মিশিয়ে লাগান। এতে চুলের (hair)অতিরিক্ত তৈলাক্ত ভাব কেটে গিয়ে উজ্জ্বল চুল ফিরে পাবেন।

আরো পড়ুন  চটজলদি চুলের যত্ন নিবেন কীভাবে?

রুক্ষ চুলের সমস্যায়
অতিরিক্ত রুক্ষ চুলের (hair) সমস্যায় দুটো ডিমের (egg) সঙ্গে মেয়োনিজ মিশিয়ে পুরো চুলে (hair)লাগিয়ে শাওয়ার ক্যাপ পরে থাকুন। ২০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে নিলে চুলের রুক্ষ ভাব কেটে গিয়ে বশে এসে যাবে।

রোমকূপ
ত্বকের রোমকূপের সমস্যায় দুটো ফেটানো ডিমের(egg) সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে ত্বকে লাগান। শুকিয়ে গেলে হালকা গরম জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

উজ্জ্বল ত্বক
নির্জীব ত্বক উজ্জ্বল করতে দুটো ডিমের (egg) সঙ্গে এক চা চামচ টাটকা দই মিশিয়ে প্যাক ত্বকে লাগান। ২০-২৫ মিনিট রেখে প্যাক শুকিয়ে গেলে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

শুষ্ক ত্বকের সমস্যা
শীতকালে শুষ্ক ত্বকের সমস্যা দূর করতে একটা ডিমের (egg)  সঙ্গে আধ চামচ মধু মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণ মুখ ও গলায় লাগিয়ে রাখুন। হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ত্বক হাইড্রেট করে শুষ্ক ভাব কমাবে।

জেনে রাখুন এই ৫ কারণে সহবাস করতে রাজি হয় মেয়েরা !

আরো পড়ুন  চুল লম্বা করতে অ্যালোভেরা জেল এর ৩টি হেয়ার প্যাক

স্বামী-স্ত্রীর সহবাসের মাধ্যমে একজন আরেকজনের কাছে ঘনিষ্ট হন। সহবাসের ক্ষেত্রে, নারীদের চেয়ে পুরুষরাই বেশি আগ্রহ দেখিয়ে থাকেন। সহবাস, সেক্স এই বিষয়গুলি নিয়ে পুরুষদের উৎসাহ যতটা চোখে পরে, নারীদের উত্তেজনা সেই তুলনায় কম। কিন্তু তা বলে কি মহিলারা সহবাস করেন না?

নাকি মহিলারা সহবাসে একেবারেই আগ্রহী হন না ? ব্যাপারটা মোটেই তেমন নয়। নারীরা সহবাসে যথেষ্ট আগ্রহী হন এবং রতিক্রিয়ায় সমানভাবে অংশও নেন। কিন্তু সমাজ, পরিবার, আত্মীয় এসবের কথা চিন্তা করে প্রাথমিকভাবে সহবাসে আগ্রহ দেখাতে ভয় পান। কিন্তু পুরুষরা যদি ৫টি কারণ নিয়ে মহিলাদের (female) কাছে হাজির হন, তবে তাঁরা সন্মতি না দিয়ে থাকতে পারেন না।

মহিলাদের (female) সহবাসে রাজি করানোর প্রয়োজনীয় সেই ৫ কারণ জেনে নিন এই প্রতিবেদনে।

১. প্রচলিত আছে রতিক্রিয়ায় সম্পূর্ণ ভাবে তৃপ্ত হলে মহিলারা স্বর্গসুখ পান। তাই সম্পূর্ণ আনন্দ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলে মহিলারা সহবাসে সন্মতি দিতে পারেন।

২. প্রেম করলে বা কাউকে ভালোবাসলে, মহিলারা তাঁদের ভালবাসার মানুষের সঙ্গে সহবাস করতে আগ্রহ দেখান। সেইক্ষেত্রে সহবাসে কোনও সমস্যা থাকে না। কিন্তু একটা বিষয় এই ক্ষেত্রে বলা জরুরি। শুধুমাত্র কোনও মহিলার সঙ্গে সহবাসের জন্য তাঁর সঙ্গে ভালবাসার অভিনয় করা মোটেই কাম্য নয়।

আরো পড়ুন  চটজলদি সিল্কি চুল পাওয়ার সেরা ৬টি উপায় জেনে নিন

৩. একটু কপটরাগ, প্রেমিকের অন্য নারীর প্রতি আসক্তি ইত্যাদি দেখলেও মহিলারা সহবাসে অনেকসময় সন্মতি দিয়ে থাকেন। এক্ষেত্রে নিজের ভালবাসার মানুষটিকে আপন করে রাখতেই সহবাস করতে আগ্রহ দেখান মহিলারা।

৪. অনেকসময় চাকরিতে উন্নতি, প্রমোশন বা অন্যান্য নানা সুবিধা পাওয়ার জন্য মহিলারা সহবাসে সন্মতি দিয়ে থাকেন। এক্ষেত্রে সুযোগ পাওয়ার লোভ এবং স্বার্থসিদ্ধি মহিলাদের (female) সহবাস করার প্রধাণ কারণ হয়।

৫. এই শেষ কারণটি জানতে পারলে আপনারা অবাক হয়ে যাবেন। অনেক সময় ব্রেকআপের পর নিজের পুরনো সম্পর্ক ভুলতে মহিলারা সহবাস করার জন্য মুখিয়ে ওঠেন। পুরনো সম্পর্ক ভুলতেই না কি মহিলারা এমন অদ্ভুত পদক্ষেপ নিয়ে থাকেন। মহিলাদের (female)  এই পদক্ষেপকে কাজে লাগিয়েও কিছু পুরুষ তাঁদের সঙ্গে সহবাস করে থাকেন বৈকি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *